প্রায় দুশো বছর আগে গোড়া পত্তন হয়পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়নামক স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির এটি দক্ষিণ চট্টগ্রাম তথা নাফ নদি পর্যন্ত সুবিস্তৃত এলাকার মধ্যে প্রথম প্রতিষ্ঠিত বিদ্যাপীঠ ১৮৪৫ সালে জ্ঞানতাপস বিদ্যানুরাগী দুর্গা কিঙ্কর দত্ত বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন দুর্গা কিঙ্কর দত্ত ছিলেন পটিয়া উপজেলার দক্ষিণ ভুর্ষি গ্রামের বাসিন্দা ইতিহাস থেকে জানা যায়এটি গোড়ার দিকে ছিলো প্রাথমিক বিদ্যালয় উনিশ শতকের পঞ্চাশ দশকের দিকে সরকার এটিকে মধ্য ইংরেজি স্কুলে উন্নীত করেন ১৮৫৯ খ্রিস্টাব্দে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চ শিক্ষার পথ উন্মুক্ত করে দিলে ১৯৬৩ খ্রিস্টাব্দে বিদ্যালয়টি উচ্চ ইংরেজি পর্যায়ভুক্ত হয় ১৮৬৭ খ্রিস্টাব্দে সর্বপ্রথম বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এন্ট্রান্স (বর্তমানে এস.এস.সি) পরীক্ষায় অংশ নেন দুর্গা কিঙ্কর দত্ত স্কুলটি প্রতিষ্ঠার পর তৎকালীন সরকারমীর এহায়া এস্টেট‘-এর সাহায্য স্কুলের জন্য নির্দিষ্ট করে দেন সাহায্যের পরিমাণ ছিল মাসিক ৩৫ টাকা যা  ১৮৭০ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত  অব্যাহত ছিল। পরম ধার্মিক পুরুষ মীর এহায়া ছিলেন চট্টগ্রাম শহরস্থ কাজীর দেউরির জমিদার কোম্পানী আমলে দানবীরের মৃত্যু হয়

 

পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়একটি ঐতিহ্যবাহী গৌরবদীপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। গৌরব বয়ে এনেছেন স্কুলের প্রাক্তন কৃতী শিক্ষার্থীরা। তারা স্বীয় মেধা, যোগ্যতা কর্মপ্রচেষ্টার গুণে খ্যাতিমান হয়েছেন দেশে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে